মোমবাতি আলোয় পরীক্ষা দিয়েছে শিক্ষার্থীরা

মোমবাতি আলোয় পরীক্ষা দিয়েছে শিক্ষার্থীরা

ছবি সংগৃহিত।

এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় রংপুরে কালবৈশাখী ঝড়ের তান্ডবে বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকায় মোমবাতির আলোয় পরীক্ষা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। সোমবার পরীক্ষার ১ম দিনে রংপুরের পরীক্ষা কেন্দ্রগুলোতে এই চিত্র দেখা যায়। আগের রাতের কালবৈশাখী ঝড়ের ফলে সবগুলো ফিডে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন ছিল বলে নিশ্চিত করেছে নেসকোর নির্বাহী প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন। পরে দুপুর ১২টার দিকে বিদ্যুৎ সংযোগ চালু করা হয়।

জেলা মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, এইচ.এস.সি পরীক্ষার প্রথম দিনে রংপুর জেলার বিভিন্ন কেন্দ্রে মোট ২শ৮৯ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল। নগরীর সরকারি বেগম রোকেয়া কলেজ কেন্দ্রে দেখা যায়, শিক্ষার্থীরা মোমবাতি নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করছে। এ কেন্দ্রের কয়েকজন পরীক্ষার্থী জানায়, সকাল থেকে পরীক্ষা কেন্দ্রে বিদ্যুৎ নেই। ঘরগুলো অন্ধকার তাই বাধ্য হয়ে মোমবাতি নিয়ে পরীক্ষা দিতে যাচ্ছেন তারা।

অভিভাবকরা অভিযোগ করেন, কর্তৃপক্ষের আগে থেকে বিকল্প ব্যবস্থা নেওয়া উচিত ছিল। অন্ধকারে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিবে কীভাবে?

কলেজের অধ্যাক্ষ মোবাখখারুল ইসলাম জানান, রাতে ঝড় হওয়ায় নগরীর বেশিরভাগ এলাকায় বিদ্যুৎ না থাকায় শিক্ষার্থীরা মোমবাতি জ্বালিয়ে পরীক্ষা দিচ্ছেন। এতে তাদের ভীষণ সমস্যা হচ্ছে।

এ বিষয়ে নেসকোর নির্বাহী প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন বলেন, রোববার মধ্যরাতে ঝড়ের তান্ডবে রংপুরের বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। পরীক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে আমরা জরুরি ভিত্তিতে পৌনে বারোটার দিকে সংযোগ সচল করেছি।

রংপুর জেলার ৩৯টি কেন্দ্রের ১২৪টি কলেজে ২৫ হাজার এইচএসসি পরীক্ষায় পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এছাড়া রংপুর জেলায় আলিম ১০টি কেন্দ্রে ১৯৩২ জন, এইচএসসি (বিএম) ১৭টি কেন্দ্রে ৮৬৪২ জন এবং এইচএসসি (বিজনেস স্টাডিজ ও ভোকেশনাল) দুটি কেন্দ্রে ২১২ জন পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। পরীক্ষার কন্ট্রোল রুম থেকে জানা গেছে, প্রথম দিনে ২শ ৮৯ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত । এর মধ্যে সাধারণ এইচ এস সি তে ২শ ১৪জন, আলিম ৩৫জন বিএম ৪৩জন ।

ad